রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড এর সকল তথ্য জানুন!

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড : অর্ধশতাব্দী ধরে দেশের শিক্ষার মানকে এগিয়ে নিতে অভিভাবক এর ভূমিকা পালন করছে রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড। ১৯৬১ সালে প্রতিষ্ঠিত এই শিক্ষা বোর্ড এর কার্যক্রম সত্যিই ব্যাপক প্রশংসার দাবি রাখে।

পাসের হার এর দিক দিয়ে এই বোর্ড সারা দেশে বেশ কয়েকবার সেরা হয়। এই বোর্ড এর সফলতা সারা দেশের সবাইকে রীতিমতো অবাক করে। এই বোর্ডের এই ধরণের সাফল্যের পেছনে বেশ কিছু কারণ রয়েছে। 

  • প্রথমত সঠিকভাবে দায়িত্ব পালনের জন্য এই বোর্ড পরীক্ষকদের বিশেষ প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করে। 
  • দ্বিতীয়ত বিদ্যালয়গুলোতে পাঠদানের ব্যাপারে গুরুত্ব দেওয়ার জন্য বোর্ডের পক্ষ থেকে ব্যাপক নজরদারি করা হয় হয়।

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড Rajshahi Education Board

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড প্রতিষ্ঠিত হল কিভাবে?

১৯৬১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় উক্ত বোর্ড। এই বোর্ড এর অধীনে রয়েছে বেশ কিছু অঞ্চলের শিক্ষা প্রতিষ্টান। পাবনা, জয়পুরহাট, নওগাঁ, রাজশাহী, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ ইত্যাদি অঞ্চলের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এই বোর্ড দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। 

এই বোর্ড টি পূর্ব পাকিস্তান মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অর্ডিন্যান্স ১৯৬১ অনুযায়ী স্থাপিত ও পরিচালিত হয়ে আসছে। মূলত প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ে উক্ত বোর্ড টি ছিল এস. এস. সি এবং এইচ. এস. সি পরীক্ষা পরিচালনা ও উন্নয়নের জন্যে বিশেষ ক্ষমতাপ্রাপ্ত একটি  প্রতিষ্ঠান।

আমরা যদি ১৯৬১ সালের পেছনে যায় তাহলে দেখব তখনকার সময়ে বাংলাদেশের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহের কার্যক্রম ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে পরিচালিত হতো। তবে ১৯৬১ সালের পরবর্তী সময়ে রাজশাহী বাসী শিক্ষা বিস্তারের অমূল্য এই প্রতিষ্টান টি নিজেদের অধীনে পরিচালনের  ক্ষমতা লাভ করে।  রাজশাহী মহানগরের লক্ষীপুর এলাকায় প্রতিষ্টিত হয় উক্ত এর বর্তমান দাপ্তরিক ভবন । 

শুরুতে এই শিক্ষা বোর্ডের কর্মকান্ড ছিল অনেক ব্যাপক। তখন সমগ্র উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গ রাজশাহী বোর্ডের অধীনে ছিল। কিন্তু ১৯৬৩ সালে যখন যশোর শিক্ষা বোর্ড প্রতিষ্ঠিত হয় তখন এই পরিধি কিছুটা কমে যায়। যদিও বৃহত্তর রাজশাহী, রংপুর, দিনাজপুর, পাবনা ও বগুড়ার মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা ব্যবস্থাপনা এই বোর্ডের অধীনে পরিচালিত হয়। রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন এর যাবতীয় সকল তথ্য জানুন!

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড এর কার্যক্রম

২০০৭ সালে দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ড প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত দেশের সর্ববৃহৎ শিক্ষা বোর্ডের দায়িত্ব পালন করে এসেছে উক্ত বোর্ড টি। সরকারি সিদ্ধান্তের কারণে এখনো দিনাজপুর বোর্ডের জেএসসি, এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার নিবন্ধন ও ফলাফল প্রকাশ সংক্রান্ত যাবতীয় কার্যাদি এই বোর্ড থেকে সম্পন্ন করা হয়। 

রাজশাহি শিক্ষা বোর্ডের কর্মব্যপকতা শুনে আপনি রীতিমত অবাক না হয়ে পারবেন না!  কেননা এই বোর্ড তার নিজস্ব কার্যক্রমের পাশাপাশি পাবনা, সিরাজগঞ্জ, বগুড়া, জয়পুরহাট, নওগাঁ, নাটোর ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার নিম্ন মাধ্যমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা সংক্রান্ত বিভিন্ন কার্যক্রম যথাযথ ভাবে করে আসছে। বর্তমানে এই শিক্ষা বোর্ড শিক্ষা সম্প্রসারণ, শিক্ষার মান উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ, স্কুল-কলেজের স্বীকৃতি নবায়ন, নির্ধারিত সময়ে জেএসসি, এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা গ্রহণ, ফলাফল প্রকাশ এবং উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীদের মাঝে একাডেমিক ট্রান্সক্রীপ্ট ও সার্টিফিকেট বিতরণসহ পাবলিক পরীক্ষা সহ এ সংক্রান্ত সকল কার্যক্রম পরিচালনা করে।

অর্ধশতাব্দী ধরে রাজশাহীর অভিভাবক হিসেবে পরিচিত বোর্ড টি তার উপর অর্পিত দায়িত্ব অত্যন্ত দক্ষতার সাথে পালন করে আসছে। যদিও বিভিন্ন সময় রাজশাহী বোর্ডের আয়তন কমে এসেছিল। কিন্তু দেশের জনসংখ্যা  বৃদ্ধির সাথে তাল মিলিয়ে ক্রমাগতভাবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষার্থীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। আর এই বোর্ড তার উপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করেছে অত্যন্ত সুনিপুণ ভাবে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এর সকল তথ্য জানুন!

 রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড মূলত বাংলাদেশের রাজশাহী বিভাগের মাধ্যমিক ও উচ্চ-মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানগুলোর নিয়ন্ত্রক হিসেবে কাজ করে। যদিও ভালো ফলাফল মূলত শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিভাবকদের ওপরই নির্ভর করে। তবে এক্ষেত্রে আমরা অনেকেই শিক্ষা বোর্ড এর ভূমিকা টা খুব খাটো করে দেখি। তবে ভালো ফলাফল এর পেছনে শিক্ষাবোর্ডের কিছু ভূমিকা গুলোর কথা আমাদের বলা প্রয়োজন। শিক্ষা বোর্ড এর এমন কিছু ভূমিকা হচ্ছে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা, ঠিকভাবে মূল্যায়ন করা, পাঠদানের ব্যাপারে গুরুত্ব দেওয়া এবং যথাযথ ভাবে মনিটরিং করা। 

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের (Rajshahi Education Board) সেবাসমূহ

  • নতুন কলেজে ভর্তির জন্য ভর্তিকৃত কলেজ থেকে ভর্তি বাতিল করে প্রক্রিয়া সম্পন্ন করন।
  • হারানো সনদপত্র উত্তোলনের প্রকিয়া সম্পন্ন করন।
  • ভর্তি বাতিল প্রকিয়া সম্পন্ন করন।
  • সনদপত্র উত্তোলন।
  • ফলাফল সংশোধন।
  • নম্বরপত্র উত্তোলন

উক্ত বোর্ডের অধীনে স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

জাতীয় পর্যায়ে রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড এর অনেক প্রতিষ্টান ইতিমধ্যে অনেক নাম কুড়িয়েছে। বগুড়া জিলা স্কুল, সরকারি আজিজুল হক কলেজ, বগুড়া ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ এমন কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এই বোর্ড এর আরো কয়েকটি স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হল।

  • রাজশাহী কলেজ
  • এডওয়ার্ড কলেজ, পাবনা
  • বগুড়া সরকারি কলেজ
  • বগুড়া সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়
  • রাজশাহী সরকারি মডেল স্কুল এন্ড কলেজ
  • রাজশাহী সরকারি মহিলা কলেজ
  • সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজ
  • সরকারি পি এন উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়
  • সরকারি শাহ সুলতান কলেজ, বগুড়া

সেই ১৯৬১ সালে প্রতিষ্ঠিত এই শিক্ষা বোর্ড এর প্রয়োজনীয়তা এখনো বিন্দু মাত্র কমেনি। বরং ক্রমেই বিস্তার লাভ করছে এই বোর্ড এর শিক্ষা কার্যক্রম। রাজশাহীর শিক্ষা ব্যবস্থার অভিভাবক হিসেবে পরিচিত রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডে পাসের হারের দিক দিয়ে সারা দেশে বেশ কয়েকবার সেরা ও হয়। ভবিষ্যতে এই বোর্ডের আরো কিছু চমক দেখার প্রত্যাশা আমরা নিশ্চয়ই করতে পারি! অ্যাসাইনমেন্ট লেখার সঠিক নিয়মাবলী জেনে নিন!

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *