রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক

রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক এর সকল তথ্য জানুন!

রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক : দেশের উত্তর এবং পশ্চিমাঞ্চল সারা দেশে কৃষি প্রধান অঞ্চল হিসেবে পরিচিত। তবে তা স্বত্ত্বেও এই অঞ্চলে কৃষি ঋণের সুবিধা ছিল খুবই সংকুচিত। এই অসুবিধা দূর করার জন্য মূলত প্রতিষ্ঠিত হয় রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক।

রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক 

দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল তথা রাজশাহী ও রংপুর বিভাগ বাংলাদেশের কৃষির শহর হিসেবে পরিচিত। আর সেখানেই প্রতিষ্ঠিত হয় বিশেষায়িত এই ব্যাংক টি। এই ব্যাংক টি দেশের কৃষিজ অর্থনীতির সর্ববৃহৎ উন্নয়ন অংশীদার হিসেবে পরিচিত। ১৯৮৬ সালের ৫৮ নম্বর অধ্যাদেশ বলে ১৯৮৭ সালের ১৫ মার্চ উক্ত ব্যাংকের কার্যক্রম শুরু হয়। প্রতিষ্ঠালগ্নে ব্যাংকটি রাজশাহী বিভাগে অবস্থিত বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের সকল শাখা ও অন্যান্য কার্যালয় এর সব দায় ও সম্পদ গ্রহণ করে কার্যক্রম শুরু করে। 

ব্যাংকটির গ্রাহক সেবা

দেশে একটা সময় রাষ্ট্রয়ত্ত ব্যাংক গুলো তথ্য প্রযুক্তি খাতে অনেক পিছিয়ে ছিল। অনেক ব্যাংকে অন্যতম প্রয়োজনীয় কম্পিউটার এর ছিলনা কোন উপস্থিতি! তবে তথ্য প্রযুক্তির উন্নয়ন ও প্রসার ঘটানোর লক্ষ্যে এই ব্যাংকে দীর্ঘ দিন পূর্বে প্রতিষ্ঠিত হয় আলাদা কম্পিউটার বিভাগ। ১০-১১ অর্থ বছরের দিকে এই ব্যাংকের ৩৬৪টি শাখাতে কম্পিউটার এর মাধ্যমে লেনদেন চালু ও গ্রাহকসেবা প্রদানের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয় । এই ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের সকল বিভাগ এবং রংপুরস্থ বিভাগীয় কার্যালয় ও ১৮টি জোনাল কার্যালয়ে তখন কম্পিউটার সরবরাহ করা হয়।  

ঢাকার প্রাইভেট ব্যাংক গুলোর সাথে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে এই ব্যাংকের ঢাকা শাখা ও এলপিও তে কম্পিউটার প্রযুক্তি ব্যবহার করে গ্রাহক লেনদেন ব্যবস্থা চালু করা হয় অনেক পূর্বে। তাছাড়া ও ই-মেইল এর মাধ্যমে এই ব্যাংক মাঠ পর্যায়ের সকল কার্যালয়ের সঙ্গে তথ্য আদান-প্রদান ব্যবস্থা চালু রেখেছে। 

তাছাড়া ও ব্যাংকটির প্রধান কার্যালয়ে লোকাল এরিয়া নেটওয়ার্ক বা ল্যান চালু করা হয়েছে যাতে বিভিন্ন তথ্যাদি ইলেকট্রনিক্যালি আদান-প্রদান করা যায়। 

রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের মানবিক উদ্যোগ 

ব্যাংকিং কার্যক্রম মানে শুধু মুনাফা অর্জন নয় সেটার প্রমাণ করেছে এই ব্যাংকটি। ব্যাংকিং কার্যক্রম এর পাশাপাশি এই ব্যাংক আরো সেসব কর্মকাণ্ডের সাথে নিজেকে যুক্ত রেখেছে সেসব এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে

  • অসহায় ভূমিহীন ও বর্গাচাষীদের জামানত ছাড়া ঋণ প্রদান
  • সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক/শিক্ষিকাদের জন্য বিশেষ ঋণ কর্মসূচি
  • মুক্তিযোদ্ধা দের জন্য বিশেষ ঋণ কর্মসূচি
  • ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী দের জন্য বিশেষ ঋণ কর্মসূচী
  • বৈদেশিক কর্মসংস্থান ঋণ কর্মসূচি
  • সৌর বিদ্যুৎ ও বায়োগ্যাস স্থাপনে  ঋণ কর্মসূচী 

ব্যাংকটির উল্লেখযোগ্য কার্যক্রম সমূহ

রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক মূলত দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের কৃষি সম্ভাবনার পরিপূর্ণ সদ্ব্যবহার এর উদ্দেশ্যে প্রতিষ্ঠিত হয়। এ অঞ্চলের শস্য উৎপাদনে কৃষিঋণ সরবরাহ, কৃষিভিত্তিক শিল্প স্থাপন, কৃষি পণ্যের প্রক্রিয়াজাতকরণ, বিপণন সহ আরো অনেক কাজে সম্পৃক্ত এই ব্যাংক।

উপরুক্ত কার্যক্রম এর পাশাপাশি রাজশাহী অঞ্চলের ভূমিহীন দরিদ্র জনগোষ্ঠী এবং শিক্ষিত ও অর্ধশিক্ষিত বেকার যুব সমাজের জন্য কর্মসংস্থান সৃষ্টির উদ্দেশ্যে এই ব্যাংকটি বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নেই। দারিদ্রে বিমোচনে ব্যাংকটির ঋণ কর্মসূচি দেশের সুধীমহলে অনেক নাম কুড়িয়েছে। নিবিড় তত্ত্বাবধানের মাধ্যমে এই ব্যাংকটি জামানতবিহীন ঋণ কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় বাংলাদেশে কি কি জেনে নিন বিস্তারিত!

তাছাড়া ও ব্যাংকটি আরো কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প হাতে নিয়েছে; প্রতিবন্ধীদের জন্য ঋণ কর্মসূচি,ছাগল পালন কর্মসূচি,স্ব-নির্ভর ঋণ কর্মসূচি, মহিলা উদ্যোক্তা উন্নয়ন ঋণ প্রকল্প, নার্সারি স্থাপন ঋণ কর্মসূচি ইত্যাদি সেই কর্মসূচি গুলোর অন্যতম।

ব্যাংকটির শাখা ও পরিচালনা পর্ষদ

সারা দেশে মোট ৩৮৩ টি শাখা নিয়ে উক্ত ব্যাংকের কর্মকান্ড পরিচালিত হচ্ছে। ঢাকা শাখা ও স্থানীয় মুখ্য কার্যালয়সহ মোট গ্রামীণ শাখার সংখ্যা ৩৩৩টি। তাছাড়াও এই ব্যাংকের শহুরে শাখা রয়েছে ৫০টি। এই ব্যাংকটি বাংলাদেশের একমাত্র বিশেষায়িত রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক যেটির প্রধান কার্যালয় ঢাকার বাইরে রাজশাহীতে অবস্থিত। সরকার কর্তৃক ঘোষিত নীতিমালার সাথে যথাযথ নীতি নির্ধারণের দায়িত্ব পালনের জন্য এই ব্যাংকে সাত সদস্য বিশিষ্ট একটি পরিচালনা পর্ষদ রয়েছে । ২০২১ সালের সর্বশেষ সময় পর্যন্ত এই ব্যাংকের অনুমোদিত জনবল ৬,১৮০। তন্মধ্যে কর্মকর্তা ৩,৮৮৮ ও কর্মচারি ১,৪৫৪ জন। 

রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক এর শাখা ও পরিচালনা পর্ষদ

একটি ব্যাংকের অপরিহার্য্য ও খুবই জরুরি উপকরণ ব্যাংকটির অর্থ বা মূলধন। উক্ত ব্যাংকের অনুমোদিত ও পরিশোধিত মূলধন ছিল বিশেষ ভাবে উল্লেখ করার মত। এই ব্যাংকের অনুমোদিত মূলধনের পরিমাণ ছিল ১০০০ কোটি টাকা এবং পরিশোধিত মূলধনের পরিমাণ ছিল ৮২৫ কোটি টাকা।

ব্যাংকটির মিশন ও ভিশন

প্রত্যেকটি প্রতিষ্ঠানের নির্দিষ্ট কিছু মিশন ও ভিশন থাকে। এই ব্যাংকের মিশন হচ্ছে সেবার মান বৃদ্ধিকে আরো শক্তিশালী করা। তাছাড়া ও ব্যাংকটি চায় প্রাতিষ্ঠানিক কাঠামো কে আরো শক্তিশালী করে আর্থিক বিনিয়োগ কে সুশংহত করতে। ব্যাংকটির ভিশন হচ্ছে  ব্যাংকের আর্থিক পরিষেবা সিস্টেমের বিকাশ। ব্যবসা করার নিয়ম সঠিক নিয়ম কানুন জানুন!

ব্যাংকটির অন্যান্য সেবা সমূহ

  • মাত্র ১০/- টাকায় কৃষকদের জন্য ব্যাংক হিসাব খোলা
  • মেধাবী-অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি প্রদান
  • প্রতিবন্ধী ও বয়স্ক-বিধবাদের জন্য ভাতা
  • সরকারী ব্যবস্থাপনায় হজ্জ্ব গমনেচ্ছুদের হজ্জ্ব এর টাকা গ্রহণ 
  • শিক্ষক/কর্মচারীদের বেতনভাতা প্রদান
  • সঞ্চয় পত্র ও প্রাইজবন্ড ক্রয়-বিক্রয় 

দেশের কৃষি খাত কে এগিয়ে নিতে নানামুখী উদ্যোগ নিচ্ছে রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক। ভবিষ্যতে এই উদ্যোগ হয়তো আরো বৃদ্ধি পাবে। তবে একথা নিশ্চিত ভাবে বলা যায় যে দেশের কৃষি খাতের উন্নয়ন ও অগ্রগতির অন্যতম অংশীদার এই ব্যাংক টি।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *