বিনা পুঁজিতে অনলাইন ব্যবসা করার নিয়ম জেনে নিন!  প্রিয়তথ্য.কম
অনলাইন ব্যবসা করার নিয়ম

বিনা পুঁজিতে অনলাইন ব্যবসা করার নিয়ম জেনে নিন! 

শুরুতেই বলে নি আপনি কি অনলাইন ব্যবসা করার নিয়ম সম্পর্কে জানেন? কিংবা অনলাইন ব্যবসা কিভাবে করতে হয় তা নিয়ে চিন্তায় আছেন? চলুন জেনে নিই অনলাইন ব্যবসা মানে কি? এবং কিভাবে সেটা শুরু করবেন?

অনলাইন ব্যবসা করার নিয়ম

অনলাইন ব্যবসা হলো এমন এক ধরনের ব্যবসা যা শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত অনলাইন বা ইন্টারনেটের দ্বারা সম্পন্ন করতে হয়।  বর্তমান যুগের সাথে তাল মিলিয়ে হাজারো মানুষ ইন্টারনেটের মাধ্যমে অনলাইন ব্যবসা করছে। ইন্টারনেটের ব্যবহার দিন দিন বেড়ে  যাওয়ার সাথে সাথেই অনলাইন ব্যবসার সুযোগ সুবিধাও বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিভিন্ন ই-কমার্স ওয়েবসাইট থেকে ল্যাপটপ, কম্পিউটার ও অন্যান্য কিছু অর্ডার করার ব্যাপারটি এখন কারো কাছে অজানা নয়। অনলাইন ব্যবসায় সম্পর্কে বিশদ ধারণা আপনার জন্য তৈরি করতে পারে অর্থ আয়ের সুযোগ। 

বিনা পুঁজিতেই হয়ে উঠুন অনলাইন ব্যবসায়ী!

নিচে আপনাকে কিছু আইডিয়া দিচ্ছি এগুলা কাজে লাগিয়ে কোন পুঁজি ছাড়ায় করুন ইনকাম।

  • এসইও কনসালটেন্ট  

সার্চ ইঞ্জিন সম্পর্কে কি আপনার ধারণা রয়েছে? বা সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন সম্পর্কে আপনি কি খুব ভালো করে জানেন? যদি তা হয় তাহলে কোন প্রতিষ্ঠানের আশায় বসে না থেকে অনলাইনেই শুরু করে দিন এসইও সম্পর্কে পরামর্শ দেওয়া। তাও আবার বিনা পুঁজিতেই! অনেক প্রতিষ্ঠান পাবেন যারা আপনার পরামর্শ নেওয়ার জন্য বসে আছে। যারা এসইও সম্পর্কে একদম জানেন না তাদের জন্য তো গুগল এবং ইউটিউব আছেই!

  •  বিজনেস প্রশিক্ষণ 

অনেকেরই ব্যবসা সম্পর্কে ভাল ধারণা থাকে। কিন্তু টাকা পয়সার অভাবে নিজের স্বপ্ন অনুযায়ী একটি প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করতে পারছে না। তবে অনেকেই জানে না অনলাইন ব্যবসার মাধ্যমেই স্বাবলম্বী হওয়া যায়। আবার অনেকেরই মনে প্রশ্ন জাগে অনলাইন ব্যবসা করার নিয়ম গুলো কেমন হতে পারে। যদি আপনার মাঝে সামান্য কিছু অভিজ্ঞতা থাকে তাহলে আপনার এই অভিজ্ঞতা বসে বসে নষ্ট করার কোন মানে নেই।

আপনি লিংকডিইনে যান, সেখানে আপনি ব্যবসা সংক্রান্ত আর্টিকেল লিখতে পারবেন। এর ফলে সেখানে আপনি অনেক ক্লায়েন্ট পাবেন। এবং আপনার নিজের মেধা এবং অভিজ্ঞতা ঝালিয়ে নিতে পারবেন। 

মাত্র ৪টি উপায় জেনে ঘরে বসে অনলাইনে আয় করুন।

১. অনলাইন টেইলারিং 

২.ফ্যাশন হাউজ 

৩.ব্লগিং 

৪.ই-কমার্স 

৫.ফ্রিল্যান্সিং 

অনলাইন টেইলারিং :

মেয়েদের সাধারনত সেলাই শেখার ব্যাপারে ছোটবেলা থেকেই একটি আগ্রহ কাজ করে থাকে। তাই তারা লেখাপড়ার পাশাপাশি সেলাই কাজ শেখার কাজটুকু সেরে নেয়, যাতে নিজেদের পরিধানের কাপড় গুলো তৈরি করে নিতে পারে। তাই আপনারও  যদি এরকম একটি অতিরিক্ত দক্ষতা থেকে থাকে তাহলে আপনি ও  ঘরে বসে  অনলাইন টেইলারিং  ব্যবসা শুরু করে দিতে পারেন। স্টুডেন্ট অনলাইন ইনকাম ২০২২ (বিস্তারিত তথ্য)

ফ্যাশন হাউজ :

ফ্যাশন ডিজাইনে  আপনার প্রয়োজন হবে কিছু থান কাপড় যা দিয়ে আপনি পোশাক তৈরি করে নিতে পারবেন এবং তারপর সেই পোশাকে এমব্রয়ডারি করে নিবেন। এভাবে অনেক ডিজাইনের অনেক রকম মহিলাদের ড্রেস তৈরি করে নিতে পারবেন। আবার আপনি চাইলে  সোসাল মিডিয়ায়  মার্কেটিং এর মাধ্যমে সেগুলো বাজারজাত করতে পারেন। সেক্ষেত্রে ফেসবুকে একটি পেইজ খুলে প্রথম পর্যায়ে আপনি আগাতে পারেন। এর পরে যদি আপনার ব্যবসা বড় হয় তাহলে আপনি অনলাইন শপ তৈরি করে তার মাধ্যমেও মার্কেটিং করতে পারবেন।

ই-কমার্স :

আপনি খুব সহজেই একটি অনলাইন শপ তৈরি করে ই -কমার্সের যাত্রা পথ শুরু করতে পারেন। এর জন্য আপনার লাগবে একটি ওয়েবসাইট। আপনার ই-কমার্স সাইটে আপনি প্রথমে মেয়েদের জামা-কাপড় উঠিয়ে ব্যবসা করতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনি চাইলে  বড় বড় ফ্যাশন ডিজাইনিং প্রতিষ্ঠানের সাথে যোগাযোগ করে তাদের পছন্দের পণ্যের ছবি গুলো জোগাড় করে আপনার সাইটে প্রোমোট করেও পয়সা উপার্জন করতে পারেন।

ফ্রিল্যান্সিং:

সবশেষে ফ্রিল্যান্সিং। ফ্রিল্যান্সিং হলো একটি স্বাধীন পেশা। ফ্রিল্যান্সিং হতে পারে আপনার জন্য একটি আদর্শ অনলাইন ভিত্তিক কাজ। যা আপনি ঘরে থেকেই সব কাজই করে নিতে পারবেন। সুতরাং বলা যায় আপনার যদি কম্পিউটার এবং লেখালেখির উপর দক্ষতা থেকে থাকে তাহলে আপনি একজন আপওয়ার্কার হিসাবে আপনার ক্যারিয়ার শুরু করতে পারেন।

শেষ কথা 

পরিশেষে বলা যায় উল্লেখিত ব্যবসাগুলো থেকে আপনার পছন্দ অনুযায়ী যেকোনো একটি ব্যবসা শুরু করে দিতে পারেন। আপনার ধৈর্য্য, মেধা সমন্বয়েই আপনি পাবেন সাফল্য। যত পরিশ্রম করবেন ততি হয়ে উঠতে পারবেন স্বাবলম্বী। এই  অনলাইন ব্যবসার নিয়ম  গুলো যদি অনুসরণ করতে পারেন তাহলে আপনিও পেয়ে যাবেন আপনার সাফল্য। টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় বাংলাদেশে কি কি জেনে নিন বিস্তারিত!

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top